একযোগে ১১৪ জন চিকিৎসক বদলি, চট্টগ্রামে করোনায় চিকিৎসায় সংকট তৈরির আশংকা

চট্টগ্রাম : করোনা মহামারীর কঠোর বিধিনিষেধ বা লকডডাউন চলাকালীন সময়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ১১৪ জন চিকিৎসককে বদলির ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করে কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম নগর ও বিভাগীয় নেতৃবৃন্দ।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ শুধুমাত্র চট্টগ্রাম জেলা নয়, এতদাঞ্চলের প্রায় ৫ কোটি মানুষের সেবা প্রদানের একটি জরুরি প্রতিষ্ঠান। তাই চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে রিপ্লেসমেন্ট ছাড়া এই জরুরি অবস্থায় হঠাৎ বদলি করোনা আক্রান্ত ও সাধারণ রোগীদের মাঝে জরুরি সেবা প্রদানে কিছুট হলেও সংকট তৈরি করবে বলে মত প্রকাশ করে অবিলম্বে এই জরুরি সময়ে এ ধরনের হটকারী সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রেরিত বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগরের সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারণ সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, যুগ্ন সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম ও ক্যাব চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান প্রমুখ।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা মহামারীর বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে নেতৃত্ব প্রদান করছেন চিকিৎসক ও এর সাথে জড়িত নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, টেকনেশিয়ানসহ অন্যরা। যেহেতু লকডাউন চলমান, সাধারণ জনগণের চলাচল নিয়ন্ত্রিত আর এই সময়ে বদলিকৃত চিকিৎসকদের নতুন কর্মস্থলে স্থানান্তর ও যোগদান স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে কঠিন হবে। আর এই সময়ে এই সমস্ত চিকিৎসকদের সেবাগ্রহীতা সাধারণ ও কোভিড রোগীরা তাদের কাক্ষিত সেবাপ্রাপ্তিতে বিড়ম্বনার শিকার হতে হবে। ফলশ্রুতিতে জরুরি চিকিৎসা সেবায় সংকট তৈরি করবে। এর বাইরে বদলিকৃতদের রিপ্লেসমেন্ট দেয়া হয়নি এবং দেওয়া হলেও নতুনদের দায়িত্বগ্রহণ করে চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রাখা অনেক স্থানে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করবে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, চিকিৎসাসেবা একটি মহান মানবিক পেশা। মানুষের জীবন বাঁচানোই এই পেশার মূল কাজ। আর করোনা যেহেতু স্বাস্থ্য সংকট, সে কারণে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী এখানে মুখ্য। অথচ যুদ্ধের ময়দানেও চিকিৎসকরা আহত সৈনিকের চিকিৎসা সেবা দিয়ে জীবন বাঁচান। বাংলাদেশের করোনা মহামারী সংকটে অনেক চিকিৎসকের সাহসী ভুমিকায় জাতি গর্বিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *